Close

দিনরাত্রি কেন হয়? দিনরাত্রির হ্রাস বৃদ্ধির কারণ ব্যাখ্যা কর।

অনেক সময়ই আমাদের মধ্যে চিন্তার উদয় হয় যে, পৃথিবীতে দিনরাত্রি কেন হয় অথবা পৃথিবীতে কিভাবে দিন ও রাত হয়? আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি পৃথিবীতে দিনরাত্রি হওয়ার কারণ নিয়ে।

দিনরাত্রি কেন হয়

মূলত, পৃথিবীর আহ্নিক গতির ফলে দিনরাত্রি সংঘটিত হয়। এখন প্রশ্ন আসতে পারে আহ্নিক গতি কি? আহ্নিক গতি হলো, পৃথিবী তার নিজ অক্ষে আবর্তন গতিকে আহ্নিক গতিকে (Diurnal Motion) বলা হয়। পৃথিবী তার নিজ অক্ষে একবার আবর্তন করতে সময় নেয় ২৩ ঘণ্টা ৫৬ মিনিট ৪ সেকেন্ড অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টা বা একদিন।

এভাবে পৃথিবী পর্যায়ক্রমিকভাবে আবর্তন করার ফলে আলোকিত দিকটা অন্ধকারে এবং অন্ধকারের দিকটা সূর্যের দিকে চলে আসে। ফলে দিন-রাত্রি পাল্টে যায়। ধীরে ধীরে অন্ধকার স্থানগুলো আলোকিত হয়ে দিনে পরিণত হয় এবং আলোকিত স্থান অন্ধকারে পরিণত হয়ে ওইসব স্থানে রাত হয়। এভাবে পৃথিবীর আহ্নিক গতির কারণে পর্যায়ক্রমে দিনরাত্রি সংঘটিত হচ্ছে।

দিনরাত্রির হ্রাস-বৃদ্ধির কারণ

আমাদের মধ্যে মাঝে মাঝে এমন ভাবনাও আসে যে, রাত ও দিন ছোট বড় হয় কেন?

পৃথিবী সূর্যকে প্রদক্ষিণকালে নিজ কক্ষপথের সঙ্গে ৬৬.৫° কোণে হেলে পরে এবং নিজ মেরুরেখার অবস্থান সমান্তরাল রেখে ক্রমান্বয়ে স্থান পরিবর্তন করছে। ফলে পৃথিবীর যেকোন একটি গোলার্ধ অধিকতর স্থানে বেশি আলো পায় এবং দিনের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়ে। অনুরূভাবে স্বল্প পরিসর স্থানে সূর্যের আলো থেকে বঞ্চিত থাকার ফলে রাত্রির পরিমাণ কমে যায়। অন্যদিকে, অপর গোলার্ধ সূর্য থেকে দূরে থাকার কারণে স্বল্প পরিসর স্থানে সূর্যের আলো পড়ে এবং অপেক্ষাকৃত অধিকতর স্থান সূর্যের আলো থেকে বঞ্চিত হয়ে থাকে। ফলে উক্ত গোলার্ধে দিনের পরিমাণ কমে যায় এবং রাত্রির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়।

আরো পড়ুন

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.