Close

রেখা কাকে বলে? কত প্রকার ও কি কি? রেখা ও রেখাংশের মধ্যে পার্থাক্য

রেখা কাকে বলে

যার অসীম দৈর্ঘ্য আছে, কিন্তু প্রস্থ, বেধ বা উচ্চতা নেই তাকে রেখা (Line) বলা হয়।

এক্ষেত্রে অসীম দৈর্ঘ্য বলতে বুঝায়, রেখার দৈর্ঘ্য দুইদিকে অসীম পর্যন্ত ক্রমবর্ধমান। ফলে রেখার কোনো নির্দিষ্ট দৈর্ঘ্য থাকে না। এটি সোজা সুজি ভাবে দৈর্ঘ্য বরাবর উভয়দিকে অসীম পর্যন্ত চলমান হয়। রেখার কোনো প্রান্ত বিন্দু থাকে না। তাই রেখাকে ইচ্ছামত উভয় দিক বরাবর বাড়ানো যায়।

রেখার প্রকারভেদ (Types of Line)

রেখা প্রধানত দুই প্রকার হয়ে থাকে। যথা –

  • সরলরেখা (Straight Line) ও
  • বক্ররেখা (Curved Line)।

১। সরলরেখা (Straight Line

কোন একটি বিন্দু থেকে অন্য একটি বিন্দুতে পৌঁছাতে রেখাটি যদি কোন প্রকার দিকের পরিবর্তন না করে, তবে তাকে সরলরেখা (Straight Line) বলা হয়।

২। বক্ররেখা (Curved Line)

রেখাটি একটি বিন্দু থেকে অন্য কোন বিন্দুতে পৌঁছাতে যদি দিক পরিবর্তন হয়, তখন তাকে বক্ররেখা (Curved Line) বলে।

রেখার ব্যবহার (Use of Line)

রেখা ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের জ্যামিতিক আকার তৈরি করা যায়। যেমন: সরলরেখার মাধ্যমে ত্রিভুজ, আয়তক্ষেত্র, রম্বস, সামান্তরিক, চতুর্ভুজ, পঞ্চভুজ, ষড়ভুজ ইত্যাদি তৈরি করা যায়। আবার বক্ররেখা ব্যবহার করে বৃত্ত, উপবৃত্ত, অধিবৃত্ত, ইত্যাদি তৈরি করা যায়।

চিত্রকলাতেও রেখার বহুল ব্যবহার রয়েছে। বিভিন্ন ধরনের রেখার মাধ্যমে শিল্পীরা তাদের নিজস্ব রেখাচিত্র তৈরি করেন।

রেখা ও রেখাংশের মধ্যে পার্থক্য

রেখা ও রেখাংশের মধ্যে বেশ কিছু পার্থক্য বিদ্যমান আছে, যা নিম্নে আলোচনা করা হলোঃ

ক্রমিকরেখারেখাংশ
1রেখার কোন নির্দিষ্ট দৈর্ঘ্য নেই।রেখাংশের নির্দিষ্ট দৈর্ঘ্য থাকে।
2রেখার প্রান্তবিন্দু থাকে না।রেখাতে দুইটি প্রান্তবিন্দু আছে।
3যেকোনো সমতলে রেখা দুইদিকে অসীম পর্যন্ত বিস্তৃত।কোনো সমতলে রেখাংশ অসসীম পর্যন্ত বিস্তৃত নয়।

আরও পড়ুন

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.