Close

রূপচর্চায় লেবুর ব্যবহার জেনে রাখুন – ঘরোয়া বিউটি টিপস

রূপচর্চায় ঘরোয়া বিউটি টিপস

পাতিলেবু এক অসাধারণ কার্যক্ষমতা সম্পান্ন একটি ফল। এর পাতিলেবুর বিভিন্ন উপকারীতার পাশাপাশি রূপচর্চায়ও দারুন ভূমিকা পালন করে।

রূপচর্চায় লেবুর ব্যবহার

আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি, রূপচর্চায় পাতিলেবুর ব্যবহার নিয়ে। মুখে লেবুর রস লাগানোর উপকারিতা সহ লেবুর ৫ টি ব্যবহার বর্ণনা করা হলো। আশা করি ভালো লাগবে –

১.ত্বককে ফর্সা করে তোলে:

লেবুর মধ্যে বিদ্যমান ভিটামিন সি, সাইট্রিক অ্যাসিড ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে ক্ষতিকারক ভিতর থেকে টক্সিক উপাদানগুলো বের করে দেয়। সেই সঙ্গে ত্বকে কোলাজেনের উৎপাদন বাড়িয়ে তোলে। ফলে ধীরে ধীরে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ার সাথে সাথে স্কিন টোনের উন্নতি ঘটতেও সময় লাগে না।

তাই অল্প দিনেই ঘরোয়া পদ্ধতিতে যদি ফর্সা ত্বকের অধিকারি হতে চান, তাহলে নিয়ম করে লেবুর রস মুখে লাগাতে পারেন! প্রসঙ্গত, যেকোন ডার্ক স্পট দূর করা ছাড়াও বলিরেখা কমাতেও লেবুর রসের ভূমিকা অনন্য।

২. ত্বকের হারিয়ে যাওয়া আদ্রতা ফিরে আসে

ডার্মাটোলজিস্টদের মতে, ত্বকের ভিরতে যত আদ্রতা থাকে, স্কিনের স্বাস্থ্যের তত উন্নতি ঘটে। শুধু তাই নয়, অল্প বয়সে ত্বক কুচকে যাওয়ার আশঙ্কাও হ্রাস পায়। এছাড়া বলিরেখা প্রকাশ পাওয়ার সম্ভাবনাও কম থাকে।

তাই শীত বা গরম যেকোন ঋতুতে ত্বককে যদি আদ্র রাখতে চান, তাহলে লেবুকে কাজে লাগাতে পারেন গুরুত্বপূর্ণ টোটকা হিসেবে! এক্ষেত্রে লেবুর রসের সঙ্গে সম পরিমাণ ডাবের জলে মিশিয়ে মুখে লাগান। কিছু দিন এটা ব্যবহার করলে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া আদ্রতা ধীরে ধীরে ফিরে আসবে। এবং সেই সঙ্গে ত্বক উজ্জ্বল বৃদ্ধি পাবে ও ত্বক প্রাণবন্ত হয়ে উঠতেও সময় লাগবে না।

৩.হলুদ দাঁতকে সাদা করে

অনেকেরই অতিরিক্তি চা পান, ধূমপান এবং আরও নানা কারণে দাঁতে হলুদ ছোপ ছোপ দাগ হতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই দাঁতের সৌন্দর্য চোখে পরার মতো কমে যায়। আপনার সাথেও যদি এমনটা হয়ে থাকে, তাহলে আজই লেবুর সাহায্য নিতে শুরু করুন। দেখবেন দুয়েক সপ্তাহের মধ্যেই দাঁত ধপধপে সাদা হয়ে উঠবে।

লেবুর রস ব্যবহার করার জন্য অল্প পরিমাণ খাবার সোডার সাথে লেবুর রস মিশিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করে নিন। তারপর ঐ পেস্ট দিয়ে নিয়ম করে দাঁত মাজতে হবে। এভাবে কয়েক সপ্তাহ করলেই আপনি পরিবর্তন লক্ষ করতে পাবেন, দেখবেন দাঁত সাদা হতে শুরু করেছে।

৪. কুনুইয়ের কালো দাগ দূর হবে

একটু খেয়াল করলেই দেখতে পাবেন, অনেকেরই গোড়ালি এবং কুনুইয়ে কালো ছোপ ছোপ দাগ দেখা দেয়, যা মোটামুটি স্থায়ী দাগ মনে হবে। এর ফলে শরীরের সৌন্দর্য কমে যায়। এই সমস্যা সমাধানে লেবুর কার্যকরীতা অসাধারণ।

এক্ষেত্রে, একটি লেবু কেটে অর্ধেক অর্ধেক পরিমাণ নিয়ে যেখানে কালো ছোপ ছোপ দাগ হয়েছে, সেখানে ঘষতে থাকুন। কয়েকদিন এভাবে করলেই দেখবেন কালা দাগ মিলিয়ে গেছে।

৫. মুখের ব্ল্যাক হেডকে নিমূল করে

আপনার যদি সারা মুখ ব্ল্যাক হেডসে ভরে গিয়ে থাকে, তাহলে আজ থেকেই লেবুর রস লাগিয়ে ত্বকের পরিচর্যা করা শুরু করুন। দেখবেন বেশ উপকার পাওয়া যাবে। মূলত লেবুতে উপস্থিত অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল প্রপাটিজ এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

এখন মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, ব্ল্যাক হেডসকে দূর করতে লেবুর রসকে কীভাবে কাজে লাগাতে হবে । এক্ষেত্রে একেবারে সহজ সমাধান! একটা লেবু থেকে সংগৃহীত রস সারা মুখে লাগাতে হবে। এভাবে কয়েকদিন করলেই দেখবেন সমস্যা কমতে শুরু করেছে।

মুখে লেবুর রস লাগানোর উপকারিতা বেশ লক্ষনীয়, যা কিছু দিনচেষ্টা করলেই বুঝতে পারবেন।

সমাপণী

আশা করি রূপচর্চায় লেবুর ব্যবহার গুলো আপনাদের কাজে আসবে। সবার সুস্থ্য ও সুন্দর জীবন কামনা করছি।

Read More

  • জেনে নিন মেকাপের খুঁটিনাটি টিপস
  • রূপচর্চায় ঘরোয়া পদ্ধতিতে উপটান

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!